header



"চট্রগ্রামের রাউজান থানার মানুষের পাশে কর্ক আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রূপেশ বড়ুয়া।"


ছবি: কর্ক আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রূপেশ বড়ুয়া


দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়াতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে আসছেন আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের কর্মীরা।

রূপেশ বড়ুয়া আয়ারল্যান্ডের কাউন্টি কর্কে বাঙালী কমিউনিটির অতি পরিচিত নাম। লোকজনের সাথে ওনার পরিচিতি এরকম পর্যায়ে যে নাম বললে যে কেউ ওনার বাড়ি ঘর পর্যন্ত দেখিয়ে দিতে পারে।

বিদেশে সবাই কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে তাই বন্ধুবান্ধব ও কম থাকে। আর নেহায়েৎ প্রয়োজন না হলে কেউ অন্য লোকের বাসা বাড়িতে খুব একটা যাওয়া আসা করে না। ছুটির দিনে সবাই নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থাকে। ঠিক এরকম অবস্থানে দাঁড়িয়ে অধিকাংশ লোকের একজন ব্যক্তির বাড়িঘর চেনা অবশ্যই কিছুটা গুরুত্ব বহন করে বৈকি।

গতবছর কাউন্টি কর্কে সফরকালে এরকম অভিজ্ঞতা আমার নিজের হয়েছিল। জিজ্ঞাসা করতেই জানা গেলো এর কারণ। মানুষকে তিনি নাকি কখনো না বলতে শিখেননি। দরকারী কোনো বিষয়ে প্রয়োজন হলেই রূপেশ বড়ুয়াকে পাশে পাওয়া যায়। প্রবাসীদের কাগজ পত্রের সমস্যা থেকে শুরু করে বাড়ি ঘর ভাড়া পাওয়া পর্যন্ত সব বিষয়েই তিনি কিছু না কিছু পরামর্শ দিয়ে থাকেন যার মাধ্যমে সাময়িকভাবে হলেও ব্যক্তি উপকৃত হন। কাউন্টি কর্কে হাতে গোনা এরকম শুধুমাত্র কয়েকজন ব্যক্তি রয়েছেন। আমাদের রূপেশ বড়ুয়া তাদেরই একজন।

আমাদের বললাম এই জন্য যে, তিনি আয়ারল্যান্ড আওয়ামীলীগের একজন নেতা এবং কর্ক আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। আর আওয়ামী বৈশিষ্টের মধ্যে একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে প্রয়োজনে অথবা দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

তাই এই দুর্যোগে তিনি খাদ্য সামগ্রী নিয়ে এগিয়ে গেলেন চট্রগ্রামের রাউজানে জনসাধারণের পাশে যাদের বর্তমানে কাজের অভাবে ঠিকভাবে দৈনিক অন্ন সংস্থান করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। খাদ্য সামগ্রী বন্টনের কাজে রূপেশ বড়ুয়ার অবর্তমানে প্রত্যক্ষভাবে সেখানে সহায়তা করেছেন ওনার 'মা'।

সময় স্বল্পতায় আমরা ঠিক জানতে পারিনি ওনার বণ্টনকৃত খাদ্য সামগ্রীতে কি কি ছিল কিন্তু ছবি দেখে নিশ্চিত বোঝা যাচ্ছে একটি পরিবারের হয়তো এক সপ্তাহের অন্ন সংস্থান করা গেছে।

ছবি: খাদ্য সামগ্রী প্রক্রিয়াজাত ও বিতরণ


আয়ারল্যান্ডে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে মোটামুটি অনেকের খবরই প্রকাশিত হচ্ছে। এইভাবে লোকজন মানুষের জন্য এগিয়ে না এলে আমরা জানতে পারতাম না আমাদের আশেপাশে এখনো অনেক ভালো মানুষ নিয়মিত বিচরণ করছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রূপেশ বড়ুয়া অন্যান্য সকলকেও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

আয়ারল্যান্ড ও ডাবলিন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকেও আমরা সকলকে অনুরোধ করবো এই দুর্যোগ মুহূর্তে জনগণের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য। আমাদের এই পোস্টের উদ্দেশ্য দেশে বা বিদেশে অন্যান্য সকলকে সামর্থ্য অনুযায়ী ত্রাণ দেওয়ার জন্য অনুপ্রাণিত করা।

আপনাদের সকলকে বুদ্ধ পূর্ণিমার শুভেচ্ছা।



      

[ সংবাদটি পড়া হয়েছে : 86 বার ]






Published on: 08/05/2020